অঙ্গে আসা অঙ্গে যাওয়া

লেখক:

মুহম্মদ নূরুল হুদা

তুমি আমার ওড়ার সঙ্গী, নামার সঙ্গী নও

তুমি আমার চলার সঙ্গী, থামার সঙ্গী নও।

উড়তে উড়তে কোথায় এলে কোন সে তেপান্তর –

হাট পেরিয়ে ঘাট পেরিয়ে ঘর পেরিয়ে চর?

চরের দেখা পেলেই কিন্তু যায় না থেমে দাঁড়,

সতী যখন পাহারাদার ভেলায় পতির হাড়।

আকাশগাঙে উড়ছে ভেলা মাটির শেকড় ছেড়ে

আয় দেখি আয় কে নিতে চাস্ বুকের মানিক কেড়ে?

জন্ম ছেড়ে জন্মে চলি, দৃষ্টি সূর্য-ঘড়ি

রূপবদলের হাটে-হাটে ঘাটবদলের কড়ি।

কোথায় ছিলে, থাকবে কোথায়, কোথায় তুমি থাকো

কার আদলে ঝড়বাদলে আদমসুরত আঁকো?

পাই যতবার ততবারই হারিয়ে খুঁজি খুশি

আমি আমার চেনা খাঁচায় অচিন ছায়া পুষি।

আমার মাঝে তোমার ছায়া, তোমার মাঝে আমার

কায়ার ছায়ায় ছায়ার কায়ায় মায়ার নিরাকার।

উড়তে গেলে ধরতে শিখি, ধরতে গেলে উড়ি

আমরা দুজন ঘুড়ি খেলার প্রতিযোগী ঘুড়ি।

খেলতে-খেলতে যাচ্ছি ছেড়ে প্রাসাদ-ঘর-বাড়ি

তিনভুবনের সদর অন্দর যুগলাঙ্গে পাড়ি।

আমি আদম আমি মনু হেলেন আমি হাওয়া

তুমি আদম তুমি মনু হেলেন তুমি হাওয়া

 

অঙ্গদাস ও অঙ্গদাসী, অঙ্গে আসা-যাওয়া।

শেয়ার করুন

Leave a Reply