এমন মানবজমিন

লেখক:

বায়তুল্লাহ্ কাদেরী

জলস্পৃহায় সতৃষ্ণ ঝড়
অতিলেহ্যময়তায় বার করেছি ধ্বনিত জিহবা
আগুন অবধি।
শরীর, বাঁশির ঝোপ, কালকচু-চুলমগ্নতার জল
নৌকা-চাঁদ যৌবনের নাব্যনদী
আমাকে উপড়ে ফেলে দেয় গহিন বিপিনে
অতিকায় তরুর সতরে পাছাপেড়ে
অাঁচল টানার মতো অবগুণ্ঠনের সন্ধ্যা
মারীচমায়ায়
বেহুদা বিভ্রমে
আমাকে গুলিয়ে ফেলে,
দীঘল শরীরব্যাপী যে-প্যাঁচানো হিমঝড়
আমার মস্তকজুড়ে এধারে-ওধারে
লেজ ঝাপ্টায়, তার কি অবসান নাই?
সেই মৃতবৎসা
বহুবার ক্রোড়ের অপত্যে
খুঁড়েছে কবর সুশীলের-দুঃশীলের কিংবা
জায়মান সজ্জনের, বহুবার ক্রোড়ের আক্রোশে
ক্রোড়শূন্য ধূলিমালিন্যের জগৎঘূর্ণনে
ভ্রমিবার অভিপ্রায়ে জগৎ ঘুরেছে
দেখেছে পালক, দেখেছে মানবজন্ম
এমন পতিত
অনাবাদি খোলস-আবৃত
পরিত্যক্ত।

শেয়ার করুন

Leave a Reply