বরণ

লেখক:

সব্যসাচী দেব

যদি বিষণ্ণতা খোঁজো, যদি অন্যমনে
ভেবে নাও শুদ্ধ জল খুনির হাতের
রক্ত মুছে দিতে পারে, বিপন্ন সময়
আরো একটু কুঁকড়ে যাবে, ভয়ে, সংশয়ে।

যে-কোনো মৃত্যুর পাশে জিজ্ঞাসার রেখা
অাঁকতে পারো? আততায়ী জামার আস্তিনে
ঢেকে রাখে তার অস্ত্র, তরল পানীয়
হাসিমুখে ঢেলে নেয় সুদৃশ্য গেলাসে।

স্থানীয় সংবাদ যদি আন্তর্জাতিকতা
পেয়ে যায়, তাহলে রাস্তার পাশে রোদ
নেমে এসে ছুঁয়ে যায় মৃতদের মুখ;
তার কোনো প্রশ্ন নেই, নির্বাক বিস্ময়

থেকে যায় শরীরের আনাচে-কানাচে।
তুমি বা তাহলে কেন বিষণ্ণতা চাও!
কেন ভাবো কোথাও অমল ভালোবাসা
থেকে গেছে, কোথাও প্রশান্ত সন্ধ্যা নামে!

খেয়াঘাটে শেষ নৌকা ছেড়ে যাবে ধীরে।
হঠাৎ সূর্যাস্তে হল্লা, ফিন্কি দিয়ে ওঠে
আরো কিছু রক্তধারা। খুনির দুহাতে
তারপর তুলে দিও ফুলের স্তবক।

সোশ্যাল মিডিয়া