লীলা

পার্থপ্রতিম আচার্য

হাঁটুসমান জলে কাঁধ তুলে দাঁড়িয়েছে দামঘাস…

তলিয়ে যাওয়া বীজতলা, দিগ্বিদিকের কাদা

পায়ে পায়ে এসে ঠেকেছে

ভেজা সড়কের লীলায়।

 

ছাউনি-টানা দোকানের বেঞ্চ

বিড়ি টানছে যুদ্ধফেরত রাম,

চা খাচ্ছে রগচটা লক্ষ্মণ…

বানিয়ে তোলা চরিত্র চরণাঘাতে আছড়ে ভেঙে

হাত ফসকে পালিয়ে গেছে ধুরন্ধর রাবণ।

 

চালের আড়ত, বৃহদাকার লজ

অবৈধ অশোককাননের দখল নিয়েছে

পঙ্গপাল পুলিশ,

মাতববর বিভীষণ গামছায় মুছে নিচ্ছে

ফাটা চশমার কাচ।

 

অতীত ও বর্তমানের ভ্রমরটিকে অাঁকড়ে ধরে

বিরামহীন কান্না কাঁদে বর-পালানো বউ…

ফুরিয়ে আসে নিঃসম্বল দিন

তাল হারানো কৃত্তিবাসের খেই ভোলানো সুর।

 

ভ্যান রিকশায় পাম্প মারছে ক্লান্ত হনুমান

গ্রামবাংলার অযোধ্যা

নয় সামান্য দূর!

শেয়ার করুন

Leave a Reply