শাস্তি

লেখক:

জরিনা আখতার

 

ওই দুঃখী নক্ষত্রটি আজ রাতেও আমাকে ঘুমোতে দেবে না –

আমার দুচোখ বরাবর ঝুলে আছে রাতের আকাশে

কী করে ঘুমোই;

আমার বুকে যে ব্যথার মৃদঙ্গ বাজছে

তাতে যোগসাজশ করেছে ওই নক্ষত্রটি,

এখন রাতের অতন্দ্র প্রহরী হয়ে জেগে আছি –

কী করে ঘুমোই

দিনের বেদনার্ত স্মৃতিগুলো এখনো প্রতিফলিত হচ্ছে

ওই নক্ষত্রের শরীরে,

কী করে যে ওই নক্ষত্রটি স্থান করে নিল

আমার সমগ্র সত্তায়!

হয়তো একসময় অতীতে তা-ই ভবিতব্য ছিল

আজ তার নিষ্ঠুর অভিঘাতে জর্জরিত হচ্ছে সবটুকু বর্তমান,

হয়তো আর এক ভবিষ্যতে ক্ষমা প্রদর্শিত হবে

এই দুঃখভারাক্রান্ত অব্যর্থ শাস্তির প্রতি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply