শীতলক্ষ্যা

লেখক:

কাইয়ুম চৌধুরী

নদী স্রোতহীন

দখলের মহোৎসবে শীর্ণকায়

বর্জ্যের ভাগাড়ে –

জমে থাকা

বিলীন কচুরিপানায়।

ক্লেদাক্ত কালোজলে

বাঁশের খুঁটি।

মাঝনদী নেই

নেই পক্ষীজুটি –

লগি ঠেলে

এপার-ওপার

একটানা সুদূর প্রান্ত থেকে

ভাটিতে আসার।

এঁকেবেঁকে

বাঁশের ভেলায়

প্রাতরাশ ওড়ায় ধোঁয়া

ভাতের গন্ধ ছড়ায়।

বিবর্ণ শুকনো বাতাস

শুশুকের পৃষ্ঠদেশ

নৌকোর চারিপাশ

তিরতির বয়ে যাওয়া

একদা এক নদী –

বয়ে যেত নিরবধি

তলদেশ পায় না খুঁজে

ইটবাঁধা লাশ।

ভেসে ওঠে

কর্দমাক্ত পাঁকে –

শীতলক্ষ্যার দুই পারে

বেদনার্ত

ছবি অাঁকে।

জনতার ভিড়

সূর্যাস্তের রক্তিম আভায়

শোকস্তব্ধ নদীর দুধার –

কেঁপে-কেঁপে

বাতাসে মিলায়

গুমরানো

হাহাকার \

শেয়ার করুন

Leave a Reply