সুখ আর অসুখের গল্প

লেখক:

স্বাতী চক্রবর্তী

 

সুখী রাজপুত্র তুমি, অত উঁচু থেকে দুঃখ দেখতে পেলে,

জরা ব্যাধি মৃত্যুর ছোবল কিছুতেই এড়ানো গেল না?

বোধিদ্রম্নমে ঘুণপোকা, তোমার হৃদপি- পড়ে জঙ্গলের সত্মূপে।

তুমি কি জানতে না সবই স্বাভাবিক, এত স্বাভাবিক?

এই সব ক্ষুধা মারি শীতের থাবায় জড়সড় অসিত্মত্বের ভার,

আশেপাশে অনাবিল নিপুণ আলোকসজ্জা

গণতন্ত্র আঙুলের কালি।

এতে কিছু পাপ নেই,

পাপ আছে তোমার চুম্বনে, তোমার ঠোঁটের স্পর্শে

অবারণ চোখের জলের মহিমায়।

ক্রমশ অনাবৃত হতে হতে ঝরে গেল

সোনাদানা ঐক্য বাক্য মাণিক্য যা ছিল।

এরপর শুধু তুমি, অরক্ষিত বিগতবান্ধব,

তবু ভালোবাসাটুকু বেপরোয়া শিখা হয়ে জ্বলে গেল

শেষতম আদরের আরক্ত সমত্মাপবিন্দু

এখনো ভাস্বর।

সোশ্যাল মিডিয়া