পোড়াতে চাও হৃদয় ভরানদী

আগুন নেই কীভাবে তবু জ্বালো

একদা ছিলে চারু শিল্পামোদী

এখন কেনো বাতাসে নুন ঢালো

এখন কেন পাথর এতো প্রিয়

গাছের প্রেমে তখন ছিলে গোপী

পারলে সেই পাতার খোঁজ নিও

যেমন নিতে কদাচ যদ্যপি

আগুন এতো সস্তা কবে হলো

যখন খুশি পোড়াও মনভূমি

নদীর চোখ করলে ছলো ছলো

প্রার্থনায় বসতে কেন তুমি

দেখছো কত যুদ্ধে পোড়া শিশু

আগুন চোখে তাকায় মহামারি 

একুশ সালে লক্ষ কোটি যিশু

ক্রুশের পরে শুয়েছে সারি সারি

কোথাও কোনো কান্নাকথা নেই 

ঘুঘুর ডাকে দুপুর চিতাকাঠ

বলতে চাই বলার জন্যেই

এসেছি আজ পেরিয়ে ধুধু মাঠ

পোড়াতে চাও পোড়াও সন্ত্রাস 

বারুদভরা বিমান যত আছে

দস্যুদের যেখানে বসবাস

আগুন ধরো তাদের খুব কাছে

সামান্য এ-কবির ভালোবাসা

পুড়িয়ে বলো কতটা লাভ হবে

দেখবে শুধু অধুনা এক চাষা

ভাগ্য গোনে অন্য অসম্ভবে

Leave a Reply