একজন বিমর্ষ কেউ দাঁড়িয়ে রয়েছে দরোজায়

মুখে তার মহাকালের মৌনতা

                চোখে হিরণ¥য় বেদনার আলো –

তবু সে বলে না কিছু

তাকে খুলে দাও দরোজা – ডেকে নাও তাকে

                           আসুক সে ঘরে,

ছুঁয়ে থাকো তাকে – সে এক শাপভ্রষ্ট বালিকা

মহাকাল সবকিছু থেকে নির্বাসিত করেছে তাকে

দুঃখের শ্যাওলা জড়িয়ে রয়েছে তার রূপময় হৃদয়ে

ভেনাসের মতো উঠে এসেছে সে

                     বেদনার জলকল্লোল থেকে,

তাকে দরোজা খুলে দাও – আসুক সে ঘরে;

কোন শ্যাম-সুঠাম তাকে একা ফেলে গেছে

বাঁশিটুকু তার রেখে গেছে ভুলে

                   তাই দুঃখ তার সমুদ্রসমান,

ছিল সে হৃদয়ের বুনো অরণ্য-আলোকে,

ডেকে নাও তাকে – আসুক সে ঘরে

ছুঁয়ে থাকো তাকে॥

Leave a Reply