আমি আমার আঁতুড়ঘরে পথ হারালাম

তারিক সুজাত

সেই রাতেই প্রথম গুলির শব্দে আমার স্বপ্ন পোড়ে
পায়রাগুলো পাথর প্রহর পাড়ি দিচ্ছে
ভোরের আশায়
রক্তধারায় হারায় আমার জন্মতিথি
এখনও ভোর হয়নি, হয়নি সকাল
খোকা তুই উঠলি না রে?
মুয়াজ্জিনের আজানধ্বনি
গড়িয়ে পড়ে রক্তরাগে
শূন্যঘরে ফ্যানের ব্লেডে কাটছে বাতাস দীর্ঘশ্বাসে
সেই সিঁড়িটিই বক্ষজুড়ে আমার স্বদেশ
সেই সিঁড়িটিই ছুঁয়েছিলো অসীম আকাশ
সেই সিঁড়িটিই, এই সিঁড়িটিই …
এই সিঁড়িটিই রেহাল হয়ে আগলে ধরে
আমার আলিফ
এই সিঁড়িটিই খুলেছিলো শৌর্যগাথা অমল অতীত
মেঘে মেঘে বারুদগন্ধে চোখ খুলেনি
একটি সকাল
আমি আমার পাষাণহৃদয় কুঠার দিয়ে শিকড় কাটি
হত্যাকারীর মুখটিও যে আমার মুখের ছাঁচে গড়া
আমি আমার নাড়ি দিয়ে তৈরি করি গলার ফাঁসি
খুনে-রাঙা হাতটিও যে দেখতে আমার হাতের মতোই
আমি আমার আঁতুড়ঘরে আগুন জ্বেলে
মুখ পোড়ালাম
যত তুই ছাইচাপা দিস
অপাপবিদ্ধ মহান পিতার মুখচ্ছবি বাংলা জুড়ে
আমি আমার পিতার খুনে হাত রাঙালাম
হাত বাড়ালাম ঘাসে ঘাসে ফুলে ফুলে
আমি আমার আঁতুড়ঘরে পথ হারালাম!

Leave a Reply