স্বপ্নগুলো মরে যায়, অন্ধকারে হারায়,

পড়ে থাকে অভিশপ্ত শিলা।

মেঘেদের সিঁড়ি বেয়ে নেমে আসে মেঘদূত,

জেগে ওঠে মন্ত্রমুগ্ধ পাথর।

অনন্ত পিপাসা বুকে হেঁটে চলে যায় বহুদূরে

সবুজ ঘাসের পথ মাড়িয়ে মাড়িয়ে লোকালয় ছেড়ে

পা ফেলে সে অরণ্যের দিকে।

পেছনে পড়ে থাকে ভাঙনের উদাসীন মাঠ,

পড়ে থাকে পুকুরের জলে ভাসমান

হিজলের টুকটুকে লাল ফুল;

প্রাণ ছুঁয়ে যাওয়া মিষ্টি সুরে শিস দেওয়া দোয়েল

বউটুবানীর ঘাট, বাঁশের ডালে বসে থাকা

একাগ্র মাছরাঙা পাখি, বিষণ্ন বকুল

আর চন্দ্রমল্লিকার ফুল্ল ঝাড়,

বুড়ির বাগান, কাঁটাঘেরা কবর,

ক্রান্তির মনোহর মেলা  –  এই সবকিছু পেছনে ফেলে

আহত হৃদয় তার সঁপে দিয়ে ঘন অন্ধকারে

মহাকালের পথে সে হেঁটে চলে যায়!

Leave a Reply