কম্পোজিশন-৭

মোহাম্মদ ইউনুস বিমূর্তরীতির চিত্রাঙ্কনে সিদ্ধহস্ত। যদিও আর্ট ইনস্টিটিউটে অধ্যয়নশেষে তিনি বাস্তববাদী ধারায় ছবি আঁকায় যথেষ্ট পারদর্শিতা অর্জন করেছিলেন, পরবর্তীকালে তিনি বাস্তববাদী ধারা থেকে সরে আসেন। নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্য থেকে তাঁর শিল্পীসত্তা একটি পথ-নির্মাণে সমর্থ হয়। তিনি বিমূর্তরীতিতে চিত্রাঙ্কনে অধিক স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। তাঁর ছবিতে রং ও রেখা নিয়ত এক ভারসাম্য সৃষ্টি করে, বর্ণ ও বিন্যাস নবীন মাত্রা সৃষ্টি করে। তাঁর সৃষ্টির মধ্যে আমরা সমকালের অন্তর্বেদনাকে উপলব্ধি করি। সমকালের মানুষের দুঃখ, কষ্ট, বেদনা ও যাতনাকে তিনি বিমূর্তভাবে প্রকাশ করেন। এই অভিব্যক্তিতে রং ও রেখা প্রাধান্য বিস্তার করে। এমনকি সময়ের যন্ত্রণা ও কষ্টকে উপলব্ধি করার জন্যে তিনি পটের কোনো অংশ অগ্নিস্ফুলিঙ্গে দগ্ধ করেন। সেজন্যে সমকালীনদের মধ্যে তাঁর চিত্রভাষা ভিন্ন ও স্বতন্ত্র বলে চিহ্নিত হয়েছে।

তিনি ১৯৭৮ সালে ঢাকা আর্ট ইনস্টিটিউট থেকে স্নাতক হন। পরবর্তীকালে তিনি জাপানের তামা আর্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএফএ ডিগ্রি অর্জন করেন। এই শিক্ষাগ্রহণ তাঁর মানস-দিগন্তকে বিসত্মৃত করে। নিজের অনুভূতিকে প্রকাশ করার জন্যে তিনি নানা পরীক্ষা করেন। জাপানি সমকালীন চিত্র দ্বারা প্রভাবিত না হয়ে নিজস্ব চিত্ররীতি গড়ে তোলেন।

১৯৫৪ সালে ঠাকুরগাঁওয়ে মোহাম্মদ ইউনুসের জন্ম।

২০০২ সালে ক্যানভাসে অ্যাক্রিলিকে আঁকা এই ছবিটির সংগ্রাহক আবুল খায়ের।

Leave a Reply

%d bloggers like this: