গ্রীষ্মের সকালে হঠাৎ পলকে দেখা হয়ে গেল

পড়েনি পা যদিও মাটিতে, ছিলে চাকার বাহনে

দূরগন্তব্যের আহ্বানে, কেমন কপিশ কন্দরে

আর যেন সকালের সারস্বত সম্মিলনে।

ধনুকের মতো বাঁকা হয়ে পথ যায় পথের কিনারে;

তাড়াতাড়ি ছিপ ফেলে বসে থাকা চলে মগড়ার উজান গাঙে।

সোমেশ্বরী বসে আছে প্রতীক্ষার বাষ্পীয় শকটে

নদীর ঠিকানা কোনো ডায়েরিতে লেখা নাই।

Leave a Reply