একটা সাপ মানুষকে একটার পর একটা ঠোকর দেয় –

একসাথে দশটি ঠোকর দিতে পারে না!

একটা মানুষ

         একটা মানুষকে দশ থেকে একশটা ঠোকর

একসাথে দিতে পারে!

সে-কারণে সে সাপের চেয়েও ভয়ংকর

          সে গাণিতিক ও জ্যামিতিক জ্ঞান রাখে,

                    সাপ শুধু যোগ-বিয়োগ জানে!

সাপের লেজে পাড়া দিলে  –  সাপ কামড়ায়!

মানুষ মানুষের হাতে হাত রাখলেও

                          –  একসাথে হাঁটলেও

কিংবা গলাগলি করে থাকলেও;

কখন যে কী কারণে ঠোকর দেবে

                       বুঝতেই পারবে না!

মানুষ কপট বেশ নিয়ে ছলনায়

গলা খাঁকার দিয়ে বোঝাবে – বুকে কফ জমেছে,

কিন্তু জমেছে প্রতিহিংসাপরায়ণতার শ্লেষ্মা –

                       তা জানতেই পারবে না।

সাপের বিষ –    তার বিষথলিতে থাকে

মানুষের বিষ কোথায় না থাকে!

Leave a Reply