তরুণ কবি

সরসিজ আলীম

 

কাঠবিড়ালির লেজের ওপর একটি কাঠঠোকরাকে বসিয়ে দিলে

কাঠবিড়ালি অনেক দূর দৌড়ে গিয়েছে,

কাঠঠোকরাকে কাঠবিড়ালির লেজে বসিয়ে দিয়েছিল সেই ছেলেটি?

 

ছেলেটি প্রিয় চায়ের দোকানির সঙ্গে ঝগড়া করে অনেক পথ হেঁটেছে,

বুকপকেট সে চায়ের দোকানির কাছেই বিক্রি করেছে,

সবগুলো পকেট সে চায়ের দোকানির কাছেই ফতুর করেছে।

 

সে রাজপথ, জনপথ বা রেলপথ আলাদা করে বোঝে না,

তার প্রয়োজনেই জিপার খুলে সড়কের মাঝ কপালে দাঁড়িয়ে যায়,

জনগণের আঙুল তোলাকে বা সরকারি খুনি বাহিনীর বাঁশি সে গ্রাহ্যই করে না।

 

এবার কাঠবিড়ালির ইচ্ছা কাঠঠোকরার পিঠে চড়ে অনেক ওপরে উঠে

উঁকি দিয়ে দূর মাঠটাকে দেখবে,

কিন্তু কাঠঠোকরা কিছুতেই রাজি নয়, এই নিয়ে পরস্পরের মধ্যে তুমুল বিবাদ,

এই ঝগড়া এখন যারা মেটাবে তাদের অনেককেই আমি চিনি,

তাদের অনেকেরই সরকারি টাকায় পকেট ভারি এখন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: