তিনি বলতেন

(বেলাল চৌধুরী বরাবর)

রবিউল হুসাইন

 

তিনি বলতেন

মানুষ প্রধানত দুই ধরনের –

একদল ক্ষণজন্মা

আরেক দল কেনজন্মা

আমি ওই কেনজন্মা দলের

 

তিনি শুধু দিতে জানতেন

নিতে জানতেন না

মানুষের ভালোটাই দেখতেন

এবং কীভাবে প্রশংসা করতে হয়

সেটা জানতেন খুব ভালো করে

 

প্রশংসা করতে করতে বিরল দক্ষতায়

সমালোচনা করতেন এবং তা ছিল

গড়ন-গঠনের যা সবার দিয়ে হয় না।

আমাদের এই প্রশংসা-কৃপণ সমাজে

তার প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা বেশি নয়

বলতেন যার বউ-ভাগ্য যেমন

তার বই-ভাগ্যও তেমন – বউ আর বই একই

 

তবে সবচেয়ে মারাত্মক কথা বলেছেন

ফারাক্কা বাঁধ সম্বন্ধে শিল্পিত জলসত্র ঐশীতে

শেষ পর্যন্ত পবিত্র মা-গঙ্গাও প্রতিবন্ধী হলেন

এ কী কা-, দেশভাগ করতে গিয়ে নদীকেও খ- করতে হবে!

হায় রাজনীতি জানে না – মানচিত্র বদল হয় মনচিত্র নয়

 

দেশ ভাঙা হয়তো হলো প্রবহমান নদী কেন

প্রকৃতির গায়ে হাত অতি জঘন্য অপরাধ – খুব করে বলতেন

 

আহা তিনি যদি সবার মাঝে আরো একটু থাকতে পারতেন!

Leave a Reply

%d bloggers like this: