নীরবতা

শংকর চক্রবর্তী

 

অনেক নীরবতা সঙ্গে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলাম

তখনও হেমন্ত তেমনভাবে ঝাঁপিয়ে আসেনি

বাস থেকে নামার সময় এক সহৃদয় কন্ডাক্টর

টিকিটের বদলে আমার হাতে গুঁজে দিয়েছিল নতুন আকাশের

খ’সে-পড়া অনেকখানি একাকিত্ব

বাড়ির সামনে এসে থমকে দাঁড়াই কিছুক্ষণ

আমার পায়ের কাছে কুলকুল করছে চাঁদের আলো

আমি ঝুঁকে সামান্য ছুঁয়ে দেখলাম

স্মৃতিহীনতার জ্বরে আমার শরীর পুড়ে যাচ্ছে দ্রুত

 

ঘরে ঢুকতে পারছি না ভয়ে

আমার সঙ্গে নীরবতাটুকু  লুকোব কোথায়!

Leave a Reply

%d bloggers like this: