পুষ্পাঞ্জলি ঘাট

১.

‘বুক রাখি ভালোবাসার ঘাটে’

মন থেকে জন্ম নেয় শিল্প, অতঃপর প্রণয়।

বেঁধে রাখি সৃজন কানন, প্রণয়ের দড়ি –

কেবলই শব্দ, চিত্র, কল্প, ছন্দ, উপমারা ভ্রমর সাজে।

ও-ভ্রমর ছেড়ো না আমার; বুকের ভেতরে প্রণয়ের

লেনাদেনা ঘাট।

২.

‘ঢেউয়ের দোলায় এসো মাতাল ভ্রমর’

ও বাউল ডেকো নাগো আর। একতারার বৈকুণ্ঠ হতে।

হাটে যদি এসো তবে নিও নারে মন –

মনের বাঁধনে মন। তবু কেন জননীর কোল থেকে ছিন্ন বাঁধন।

কার জন্য তুলে রাখো তোমার সেতার; রক্তবীজ পুষ্পপত্র

ছায়াবাণী চাষ।

৩.

‘কথার ভেতরে জন্ম ক্ষয়িষ্ণু জীবন’

কী তার কথার মাতন! ফের যদি নেচে ওঠে ধ্বনি;

তবে কি নাচিবে মাঠ নাচিবে হৃদয়ের নিস্তরঙ্গ মহুয়ার বন?

নাকি রাধার জোনাকিরা নেচে যাবে নীল পাখি হয়ে –

কার জন্য জাগো তুমি ওহে ফলবতী? এলোচুলে গন্ধ মাখো

                                                     কেনো রাধাবতী?


Comments

Leave a Reply