বসন্ত রজনীতে বসিয়া রচিত কবিতা

লেখক:

টোকন ঠাকুর

নিষ্প্রয়োজনে
আমি
ছোট নাম লেখাতে গেছি
কবির খাতায়

নিজ প্রয়োজনে
আমি
নক্ষত্রের দেনা
নিয়েছি মাথায়

বিষ-প্রয়োজনে
আমি
সাপ ও বেদেনি
চেয়েছি দুটোয়

দুহাতে দুধের ছানা, বেপরোয়া মুঠোয় মুঠোয়
সম্পূর্ণ ফুটেও নারী ক্লাসিক্যালি অস্ফুট

সুতরাং,  আজ আমাকে জিজ্ঞেস করতে ইচ্ছে  হলো –
আমি কি কবি ছিলাম? সাপুড়ে ছিলাম? নাকি ছিলাম যা, তাই?

শিস প্রয়োজনে
আমি
হাওয়া-ধাক্কা দিচ্ছি
বসন্ত-জঙ্গলে গাছদেবতার
শুকনো পাতায়

কে আমি? বিখ্যাত কেউ? কী ছিলাম? গুরু কেউ? লঘু ঢেউ?
ঝরনার বাথরুমে শাওয়ার ছিলাম?
সুহাসিনীর ড্রেসিং টেবিলে আয়না ছিলাম?
গুপ্তকথা হচ্ছে, আদতে সেই রাক্ষসদের ছেলে, মানুষের ছদ্মবেশে থাকি
যোগ্যতা, নিজের মুখে জোছনারাত অনুবাদ করতে পারি, এর বাইরে
আমি যা ছিলাম, তাই
ছিলাম যা, তাই