ভালোবাসা আমার দশটি তারা কুসুম কুসুম

লেখক:

রবীন্দ্রনাথ অধিকারী

গানের ভেতর দিয়ে বুকের ভেতর দিয়ে তোমাকেই দেখি সাবলীল
যেন মায়াবী ময়ূর, তুমি নাচো, নেচে ওঠে ধরিত্রী অস্থির
নাবালক কিশোরীর মতো তোমাকেই লক্ষ্য করে ছুড়ে মারি তীর;

বিষ দিয়ে বিষ তাড়ানোর তূণ, বুক থেকে তুলে এনে আগুনের শিস
তোমাকেই ডাক দিই, ডেকে মরি চোখের ভেতরে কোনো বাহারি শ্রাবণ
ভারি হয় কষ্টপাথর, উচাটন করে এই মন, বিলোড়িত মন

এই আত্মা তোমার সিন্দুকে বন্ধক রেখে নিন্দুকের গীবত শুনি
মুঠো মুঠো করেই ভালোবাসা জমা করি হৃদয়ের খোপে ভরি হৃদয়েই দিই ঠাঁই
আকাশ থেকে বাতাস কেড়ে তোমার দেওয়া রুমাল নেড়ে তোমাকেই নবুতা পাঠাই।

প্রত্ন-পীড়িত তুমি স্মৃতি-সত্তা দর্পণে দাঁড়িয়ে তুমি একাকী বৈশাখ
নীল-জালের কদম্ব কেয়ার ডালে মায়াবী ময়ূর তুমি মৃত্যু-অপার
রোদেলা রাতের সম্ভারে কুসুম কুসুম ভালোবাসা তোমাকে দিলাম উপহার

ভালোবাসা আমার দশটি তারা, একটি তার নিঝুম দ্বীপ অন্যরা উপগ্রহ
তোমার আমার মাঝে বেলা-অবেলার গান সুরে-সুরে বাজে দ্রোহ-বিদ্রোহ।