যুদ্ধ

লেখক:

জাহিদ হায়দার

 

তোমার যৌবন, ধরা যাক, মান্য হবে আর বছর পাঁচেক;

যদিও আমরা জানি, সকল শৃঙ্খলা বাঁচে তোমার করণে;

বপনে বীজের সাথি, প্রিয়তমা শস্য তোলো তীব্র আলিঙ্গনে।

 

হাতে জাল, গভীর সমুদ্রে তোমার পুরুষ, বাঁকানো চাঁদের

লাফ দেওয়া মাছের ধরন, হঠাৎ উধাও নৌকার গ্রীবায়।

অপেক্ষার প্রতিমা সুন্দর, রাত্রি আর দিনের শ্রমিকতায়

 

উঠোনের রুগ্ণ সংসারে, পেঁপে আর কাঁচামরিচের চারা,

পেটের ভেতর শিশু, বেড়ে ওঠে স্বপ্নের জীবনধারা;

পুরুষ আসবে ফিরে হাঙরের দাঁতে, তোমার তৃষিত ঠোঁটে

 

হয়তো বা শ্রাবণের মেঘ, কল্পনায় দূরত্বের স্বপ্ন-স্বাদ,

বাহুর তান্ডবে বৃষ্টি নামে, সাদা স্তনে রূপচাঁদার আবাদ

গভীর চুম্বন-জালে, আনন্দ-মৃত্যুতে রাত্রি শোনে ভীত স্বর:

 

আমাকে সমুদ্র দাও, ঢেউয়ের গভীর তৃষ্ণায় ফেল জাল,

ধরো রূপচাঁদা, কিছুদিন পর, আমি শুধু মাছের কঙ্কাল।

২৭. ০৬. ২০১৪