সুমী সিকানদার

আত্মহননের সময়ে একমাত্র নেশা

মৃত্যুকে সফল করা।

যে আত্মাকে বিনাশ করছে বলে ভাবছে

সে মূলত দেহকে বিচ্ছিন্ন করছে,

পৃথিবীর সংযোগ থেকে

পরিচিতদের সংযোগ থেকে

সর্বোপরি নিজের সংযোগ থেকে।

এখন সিলিংয়ের শান্ত পাখার দিকে দৃষ্টি নিবদ্ধ

সে মনে মনে মাপজোখ করে নিল

দ্রুত সিøপিং পিল গিলে নিল নিশ্চিন্তে

তারপর খুব কটকটে রঙের ওড়না

নিজের গলায় ঘুরিয়ে ঝুলে পড়ল।

সে যখন ঝুলছে তখন তার শেষ ইচ্ছে ছিল

ঘুমন্ত সন্তানদের মুখ একটিবার দেখে,

সন্তানদের মাঝখান থেকেই সে উঠে

তাদের কপালে চুমো খায় শেষবার।

অবলীলায় নিজেকে ধাতবের হাতে ছেড়ে দিল

এবং হাওয়ায় ঝুলতে লাগল তার কটকটে ওড়না

এত কালের অপমানে কুচকুচে হয়ে যাওয়া মুখ এবং

আপাত স্থবির প্রাণটি।

Leave a Reply