আমার বর্ণমালা কালাপানির গর্র্ভজাত আলোকসন্তান  

যারা প্রত্যুষের লাল হয়ে, ঝলমলে আলো হয়ে

মুহূর্তে দখল নেয় পৃথিবীর সমস্ত ভূভাগ 

সালাম জব্বার আর ফাগুনের সহজাত ভাই কি না

লাল প্রিয়, প্রিয় তার রক্তাভ দরবারি পোশাক

প্রাণদানে প্রাণজয়ী – চিরদিনের অব্যয়ীকুসুম।

জাতিসংঘের বিস্তৃত হলঘরে জনকের তর্জনীর মতো

যখন আমার বর্ণমালার রাজসিক উপস্থিতি ঘটে

মনে হয়, এই বুঝি লালকেল্লার বেদিমূলে  

সদর্পে দাঁড়ান এসে সম্রাট আকবর 

এভাবেই বহুজাতিক বাহিনীর সামুদ্রিক অভিবাদনে  

সিক্ত হন মহান সম্রাট।  

আমার বর্ণমালা আমাকে দিয়েছে এক মৃত্তিকামিনার 

যে-মাটি আমার মা, যে-মিনার গর্ব জারে-জার 

বালক বিস্ময় চোখে যে-মিনারে নিজে এসে 

নগ্ন পায়ে হিমালয় ফুল দিয়ে ধন্য হয়ে যায় 

বাংলা ভাষার বর্ণপাখি কবির হৃদয় ছাড়া বসে না কোথাও

কদাচিৎ অলংকৃত করে তোলে সিংহাসন – ময়ূর আসন’।

Leave a Reply