নদীর শিয়রে বৃষ্টি খেলে যায় আনমনে

পাতায় পাতায় লিখে রাখা সুখশৈশব

ওঠে চনমনিয়ে

বাঁশের আগায় লকলকিয়ে ওঠা

লাউয়ের ডগা আমাকে দেখে হাসে

প্রীতির বাঁধন ছড়ায়

ঘুঘুডাকে জাগে প্রাণ

নদীও নৃত্যের তালে দোলে

অকস্মাৎ কে যেন বলে কানে কানে

‘দ্রুত সারো কাজ, সূর্য পা বাড়িয়েছে

                     অস্তাচলের দিকে’

ঝটপট দুহাত ভরে কুয়াশা ধরি,

আলপথে ফেলে আসা স্মৃতি কুড়াই

কৃষকের হাসিতে স্বপ্নঝরার দৃশ্য দেখি …

Leave a Reply