হে বন্ধু আমার

অলোকরঞ্জন দাসগুপ্তশেষবার তোমার কোলে মাথা রেখে কেঁদেছিলাম মুজিব যখন মৃত্যুদণ্ড এবং প্রবাসে। এরপর ফিরলেন তিনি স্বদেশে, সংক্ষিপ্তভাবে উদ্যাপিত হয়ে...

শুভেন্দু শোনো

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত জীবনানন্দ সভাঘরে তোমায় ডেকেছি সমাদরে তারপর ভিড় হতেই দুজন বসেছি বারান্দায় শুভেন্দু শোনো, এছাড়া আর আমাদের কোনো...

তবু বিশ্বাস করতে ইচ্ছে হয়

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত খুব সম্ভব মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসে তাঁর খিদে পেয়েছিল খুব, বললেন : ‘এসো, সেরে নিই প্রাতরাশ’,...

সেতুপুরুষের মৃত্যু  

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত 

কী দেখলে তুমি রৌদ্রকঠিন হাওয়ার অট্টহাসি দুহাতে ছড়িয়ে দিয়ে নিষ্ঠুর মৃত্যুর প্রেতসেনা মাঠে মাঠে বুঝি ফিরছে? ফিরুক, তবু তার...

নীল ধুতুরা

যেন এ অবুঝ তারুণ্য কারো চোখে না পড়ে সারা চোখ মুখ ঢেকে রাখি শুধু কালো কাপড়ে কেউ কেউ ভাবে...

তিউনিশিয়ায়

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত এ-যাত্রায় সঙ্গ দিয়েছিল এক পশলা দাম্পত্য কলহ মিটে গেছে তাদের ভিতরে; অন্যদিকে, তিউনিশিয়ায়, যেখানে রয়েছি, সেইখানে আরব...

জয়ের সঙ্গে

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত   জয়ের সঙ্গে অসমাপ্ত দেখা হলো নজরুলের পুরস্কার তার হাত থেকে নেওয়ার সময়, সুচিন্তিত তার ভাষণে ধর্মসমন্বয়ে...

রায়নার মারিয়া রিলকে – পুনর্বার

পূর্বাভাস : অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত প্রাক্কথন : শুভরঞ্জন দাশগুপ্ত কবিতার অনুবাদ : সমর রায়, সুনন্দা বসু ও শুভরঞ্জন দাশগুপ্ত  ...

শিক্ষানবিশ

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত   ঘড়িতে দম দিতেই শিখিনি, কবুল করি এটা করতে গিয়ে চিরটাকাল আমার মধ্যে ছিল গড়িমসির প্রভূত বিকিকিনি।...

দুটি কবিতা

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত   অনন্তের স্তনবৃন্তে   অনন্তের স্তনবৃন্তে শরণার্থী এক শিশু ঘুমিয়ে রয়েছে, ভূমধ্যসাগরে ওরা দুইজন একই নৌকায় ভেসে...