লাকডাউন

‘কি গো তোমার কাছে নারকেল হবে?’ ফলমূলের পসরা সাজিয়ে বসা মোটাসোটা দোকানি। তার দিকেই প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে দাঁড়িয়ে রইলেন সেই অধৈর্য ভদ্রমহিলা। ক্যারিব্যাগভর্তি বাগদা চিংড়ি। কেজিখানেক তো হবেই। মুখের গোমইটা […]

Read more
নতুন বছর

দেবাশিস লাহা নতুন বছর যাকে বলো পৃথিবীর বুকে সে আর এক সকাল, মহাকাল দিয়ে যায়, নিয়ে যায় তাকে; প্রিয়া ডেকেছো যাকে, সেও এক নারী – ভালোবাসা দিয়ে যায়, নিয়ে যায় […]

Read more
আমিই তোকে ছুঁতে পারি

আমিও তোকে ছুঁতে পারি, যেমন করে তুমুল নদী, ফুঁসছে তবু নিরবধি, রাত ঘনালে কূলের ওপর আলতো করেই ঝাঁপিয়ে পড়ে! আমিও তোকে ছুঁতে পারি; যেমন করে নদীর ঢেউয়ে হেই সামালো দামাল […]

Read more
মৃতকে নিয়ে খিল্লি করতে নেই

দেবাশিস লাহা মৃতকে নিয়ে খিল্লি করতে নেই – সে যেখানে গেছে, তুমিও সেখানে যাবে; বরং ফিসফিসিয়ে জেনে নাও, সেখানে ফুলদানিতে ফুল রাখার কোনো রেওয়াজ আছে কিনা, পেস্ট কিনতে ভুলে গেলে […]

Read more
দুয়োরানির খোকা

দেবাশিস লাহা হাতের মুঠোয় অষ্টাদশী মেঘ, মাখছে মাটি তবু দুটো পা, চোখের নিচে বাউন্ডুলে স্বেদ; দিন ফুরোলেই নদীর জলে ঘা – ওপার জুড়ে রাত নেমেছে আজো নদীর জলে আংটিপরা মুখ, […]

Read more
জিজ্ঞাসা

দেবাশিস লাহা এই যে এত এত লেখ, বিনিময়ে কী পাও? হাঁসের ডানার মতো কেঁপে ওঠা ঠোঁটে পুনরাবৃত্তির কোনো মেঘ লেগে নেই, অথচ মেসোপটেমিয়া, মিশর থেকে সিন্ধু, টাইগ্রিস, সক্রেটিস, পেস্নটো থেকে […]

Read more
বহ্নি বালিকা

দেবাশিস লাহা   তোমাকে কতটা চিনি বহ্নি বালিকে? মধ্যাহ্নের যূথবদ্ধ রোদে অন্ধকার অশ্বারোহী আমি, যতটা নৈর্ব্যক্তিক হলে অবিন্যস্ত পথ ধুলোর প্রলাপ থেকেও প্রার্থিত সনেট খুঁজে নেয়, অথবা অনলভ্রমে পতঙ্গের লাফ […]

Read more
সংখ্যালঘু

দেবাশিস লাহা  সংখ্যালঘু হয়ে পড়ছি ধর্মাবতার! নোম্যানস ল্যান্ডে আটকে থাকা মৃতদেহে এখনো কোনো শকুন নামেনি; ওষ্ঠে ম্যাগট, নাসারন্ধ্রে মাছি; তবু সৎকার থেকে বহুদূরে আমার বিতর্কিত ঘিলু; মানুষ আছে, কাঁধও নেই […]

Read more
বারান্দা

জানালাটা বন্ধই থাকত। গাড়ি-ঘোড়ার আওয়াজ, ধোঁয়া, ধুলো, হাড়বজ্জাত মাতালের মাতলামি কোনোটিকেই কারণ হিসেবে দায়ী করা যাবে না। তথাকথিত ফ্ল্যাট-বাড়ির জানালাও এটি নয় যে, অন্ধের কি-ই-বা দিন কি-ই-বা রাত! শুধু ছিটকিনি […]

Read more