এই তো সেদিন

লেখক:

মোহাম্মদ রফিক

এই তো সেদিন, মা ডাকেন, দাওয়ার ওপর থেকে,
খোকা, এই খোকা, বাইরে শীত, জামা গায়ে দিয়ে যাও;
এই তো সেদিন, দাদি কন, পাটিটা বিছিয়ে নিয়ে
ভালো করে দুধে কলা, এবার মাখিয়ে নেও, সোনামণি;

এই তো সেদিন এই বাবার সাইকেলে পিছে চেপে
বৈটপুর সাইনবোর্ড বাদাল বনগাঁ তারপর কত দূর
কত তেপান্তর, মরা খালে নদী তুমুল উত্তাল, সাগরের পারাপার
নীলিম অসীম ছুঁয়ে টুপ করে পড়ে ভুঁয়ে, কখন কে জানে

এই তো সেদিন, রাঙা বউ, রাঙা আলো, ঘর হলো পইঠা পইঠা হলো ঘর
বেশুমার চাঁদের আলোয় চুল উড়িয়ে পুড়িয়ে গন্ধে-ঘ্রাণে
মুগ্ধতায় পাহাড়ের খাদ বেয়ে পৌঁছে যায় মাটির গহ্বরে থরথর
যেখানে ফুলের বন্যা আহ্লাদিত চরম পুলকে করে বেসামাল

কখন সামাল দিতে দিতে কত রাত্রি হলো ভোর দিনের প্রহরা
উজিয়ে ভাসিয়ে মনে হয় এই তো সেদিন মাঠে মাঠে পাখি
ডেকে উঠল সমস্বরে চিত্তের আড়াল ভেঙে মরে আসা ধমনির ধূসর আলোয়;
বলেশ্বর আজো তাই বালুর দুপাড় আছড়ে উদাস উত্তাল, ডাক দেয়

সোশ্যাল মিডিয়া

নিউসলেটার