সোনাঝরা দিন

চঞ্চল শাহরিয়ার

 

ঈশ্বরদী জংশন থেকে শেলী আপাকে আবার

চুয়াডাঙ্গা পৌঁছে দিতে হবে। না হলে খুবই রাগ করবেন

আমার সাহানা আপা। অভিমানে ভেঙে পড়বেন

কুষ্টিয়ার খুকু ফুফু।

 

এইসব কা- দেখে আমি শুধু হাসি। হেসে হেসে মরি।

তারপর শেলী আপার ব্যাগটা কাঁধে নিয়ে পার হই

শীতের ওভারব্রিজ। শেলী আপা বললেন, আমার

খুব খিদে পেয়েছে। তেঁতুলের আচার কিনে দে চঞ্চল।

 

তেঁতুলের আচার, শেলী আপা

কথায় কথায় বকা-খাওয়া স্কুল-কিশোর

এইসব নিয়ে আছি।

 

আমার আর বড় হওয়া হলো না রে নীলপরি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: