অনুবাদ গল্প

  • বালথাজারের চমৎকার বিকেল

    গ্যাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেজ অনুবাদ : বিশ্বজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়   খাঁচাটা তৈরি হল, অবশেষে। বালথাজার চালা থেকে ওটা ঝুলিয়ে দিল, অভ্যাসবশত। দুপুরের খাওয়া শেষ করতে-করতে সবাই বলতে লাগল, এটা দুনিয়ার সবচেয়ে সুন্দর খাঁচা। এত লোক দেখতে এল যে, বাড়ির সামনে ভিড় জমে গেল। ফলে বালথাজারকে খাঁচাটা নামিয়ে নিয়ে দোকান বন্ধ করতে হল। বউ উরসুলা বলল, দাড়িটা কামাও।…

  • একটি কবিতার গল্প চন্দ্রিকা বালান

    অনুবাদ : সম্পদ বড়ুয়া সুষমা একটা কবিতা লিখছে। কাগজের পাতায় কবিতার প্রথম দুটো পঙ্ক্তি খুব সহজেই ধরা দিলো। এক ফোঁটা অশ্রম্নবিন্দু নেচে ওঠে চোখের পাতায় যখন তোমার কথা মনে পড়ে, এখনো তাই।   এগুলো খুবই সাদামাটা পঙ্ক্তি। যে-কোনো রোমান্টিক বা উত্তর-আধুনিক কবি তা লিখতে পারেন। তবে এখানে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে এজন্য যে,…

  • কুমকুম ভালো আছে

    জাহিদা হিনা অনুবাদ : বুলবুল আহমেদ   আমার আদরের দাদিমা। নমস্কার! আজ কয়েক সপ্তাহ পরে কাবুলে ফিরেছি, দেখছি তোমার লেখা চিঠি আমার জন্য অপেক্ষায় রয়েছে। তোমারটা ছাড়াও বাড়ি থেকে অনেকের চিঠি এসেছে : মা, ভাই, উমাদিদি এবং সুস্মিতা সকলের। কিন্তু তার মধ্যে, মধুরতম চিঠিটা তো তোমারই। আর এই চিঠিতে তুমি বেশ একটা বকুনি দিয়েছ আমাকে…

  • কিলিমান্জারোর বরফপুঞ্জ

      মূল : আর্নেস্ট হেমিংওয়ে অনুবাদ : হাসান আজিজুল হক   বরফাচ্ছাদিত কিলিমান্জারোর উচ্চতা ১৯,৭১০ মিটার। এটাই আফ্রিকার সর্বোচ্চ পর্বত। এর পশ্চিম শৃঙ্গটিকে বলা হয় মাসাই এন্ গাই – ঈশ্বরের প্রাসাদ। পশ্চিম শৃঙ্গের কাছে শুকনো জমাটবাঁধা একটি চিতাবাঘের কঙ্কাল রয়েছে। অত উঁচুতে এই চিতাবাঘটি কী খুঁজছিল তা কেউ ব্যাখ্যা করেনি। আশ্চর্য কথা কি জানো? এটা…

  • রুপার চুড়ি মুল্করাজ আনন্দ্

      অনুবাদ : সম্পদ বড়ুয়া ঝাড়ুদারনি সজনির মণিবন্ধে রুপার চুড়ি দেখার সঙ্গে সঙ্গে শ্রীমতী গোপী গলের মুখের কোনার রেখাগুলো আরো গভীর হয়ে ওঠে। তার ফ্যাকাশে চেহারা বিবর্ণ রূপ ধারণ করল, চকচকে ললাট সংকুচিত হয়ে ভ্রূকুটিতে পরিণত হলো। বর্ষার সূচনা-মাস শ্রাবণের প্রথম দিনে স্বামীকে খুশি করার জন্য শ্রীমতী গোপী রান্নাঘরে মিষ্ট রুটি ভাজছিলেন। সেখান থেকে হঠাৎ…

  • শাদা হাতি চুরি-বৃত্তান্ত

    মার্ক টোয়েন ভাষান্তর : রেজাউদ্দিন চৌধুরী   [বিদেশে এক ভবঘুরে-বই থেকে এ-লেখা বাদ দেওয়া হয়েছিল এই আশঙ্কায় যে, এর কিছু বর্ণনা সম্ভবত অতিরঞ্জিত এবং অন্য অংশ সত্যি নয়। এই সন্দেহ ভিত্তিহীন প্রমাণ হওয়ার আগেই বইটি প্রেসে চলে গিয়েছিল। – এম. টি।]   এই কৌতূহলোদ্দীপক ইতিহাসটি আমার কাছে বয়ান করেছিলেন হঠাৎ পরিচিত হওয়া এক রেলওয়ে যাত্রী।…

  • দীর্ঘশ্বাস

    মূল : অমৃতা প্রীতম অনুবাদ : সম্পদ বড়ুয়া কারমোর কলস ঘোলে ভরে উঠছে। অর্ধেক ভরতে না ভরতেই সে ইঙ্গিতপূর্ণ প্রশ্ন করে – ‘আজ তো বড় সর্দারনিকে দেখলাম না। সে ভালো আছে তো?’ সর্দারনি নিহাল কাউর কিছুক্ষণ আগে রান্নাঘরে এসেছে। চুলার ওপরে একটা বড় পাত্রে ক্ষীর তৈরি হচ্ছে। সে তাড়াতাড়ি চুলা থেকে কিছু কাঠ বের করে…

  • এক মাতাল মেয়ের দিবাস্বপ্ন

    মূল : ক্লারিস লিস্পেক্টরস অনুবাদ : মানবেন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায় মেয়েটির কাছে মনে হলো যে, ট্রলিকারগুলো ঘরটার মধ্যে দিয়ে যেন ওপাশে চলে যাবে, যেহেতু গাড়িগুলো তার প্রতিফলিত ছবিটাকে যেন কাঁপিয়ে দিয়ে যাচ্ছে। সে তার এই অবসরের মুহূর্তে তার চুল অাঁচড়াচ্ছিল ড্রেসিং টেবিলের সামনেটাতে। যে-ড্রেসিংটেবিলটাতে আছে তিন-তিনটে আয়না, আর তার সরল সাদা বাহুগুলো সন্ধেবেলার ঠান্ডায় যেন কেঁপে-কেঁপে উঠছিল।…

  • অচিন উইলো ও ঘুমন্ত বালিকা হারুকি মুরাকামি

    অনুবাদ : রাফিক হারিরি   চোখ বন্ধ করার সঙ্গে সঙ্গেই বাতাসের ঘ্রাণ আমার ওপর আছড়ে পড়ল। মে মাসের বাতাস শুষ্ক রুক্ষ চামড়ার ফল যেন অনেকগুলো বীজ নিয়ে ফুলে-ফেঁপে উঠছে। আমার হাতের ওপর বীজগুলো ছিটকে পড়ে ব্যথার একটা অনুভূতি তৈরি করে দিয়েছে। ‘কয়টা বাজে?’ আমার চাচাতো ভাই আমাকে জিজ্ঞেস করল। সে আমার চেয়ে লম্বায় আট ইঞ্চি…

  • একটি খুঁজে পাওয়া আংটি

    নাদিন গর্ডিমার অনুবাদ : সম্পদ বড়ুয়া   সব গোল্লায় যাক! মেয়েদের ব্যাপারে তার ভাগ্য সুপ্রসন্ন না হওয়ায় কিছুদিন সে একা থাকাই শ্রেয় মনে করল। ভালোবাসার জন্যে দু-দুবার বিয়ে করেছিল। তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী চলে যাওয়ার সময় তাঁদের যৌথভাবে কেনা প্রিয় জিনিসগুলো যেমন চিত্রকর্ম, দুর্লভ কাচের সামগ্রী এমনকি ভাঁড় থেকে তোলা দামি মদ – সব তুলে নিয়ে…

  • উদ্ভট এক মানুষের স্বপ্ন : অলীক এক কাহিনি

    ফিওদর দস্তইয়েফ্স্কি (১৮২২-৮১) অনুবাদক : হায়াৎ মামুদ আমি ভাঁড়জাতীয় লোক। মানুষ এখন আমাকে পাগলই বলে। এতে আমার পদোন্নতিই হলো বলা যায়। কারণ, বরাবরের মতো আমি আর ওদের হাসির খোরাক বলে এখন আর গণ্য হচ্ছি না। আমি তাতে আজকাল কিছু মনে করি না – এরা সবাই আমার হৃদয়ের কাছের মানুষ – এমনকি আমাকে নিয়ে যখন হাসাহাসি…

  • গ্যাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেজের গল্প অতিকায় ডানাওয়ালা এক বুড়ো

    অনুবাদ : আন্দালিব রাশদী বৃষ্টিপাতের তৃতীয় দিন পর্যন্ত বাড়ির ভেতর তাদের হাতে এত কাঁকড়া মারা পড়ল যে পেলাইয়োকে ভেজা উঠোন পেরিয়ে এসব কাঁকড়া সমুদ্রে ছুড়ে ফেলতে হলো। কারণ নবজাত শিশুটির সারারাত জ্বর ছিল আর সবাই মনে করল এই দুর্গন্ধই অসুখের কারণ। সেই মঙ্গলবার থেকে পৃথিবীটা বিষণ্ণ হয়ে আছে। আকাশ আর সমুদ্র দুটোই একই রকম ছাই-ধূসর…