এক আকাশ কবিতা লিখব

নাসরীন নঈম একলা যখন বসে থাকি আপনমনে ভাবতে থাকি তোমার কথা বাবার কথা যখন দেখি আকাশজুড়ে মেঘের ঘটা। মেঘবালিকা...

রবীন্দ্র জপমন্ত্র

মুহম্মদ নূরুল হুদা ঘুরতে ঘুরতে রবীন্দ্রনাথ খুঁড়তে খুঁড়তে রবীন্দ্রনাথ উড়তে উড়তে রবীন্দ্রনাথ সরতে সরতে রবীন্দ্রনাথ ধরতে ধরতে রবীন্দ্রনাথ পড়তে...

ব্রততী তোমার হাত

নাজিম শাহ্রীয়ার শব্দগুলি যাচ্ছে হারিয়ে আদর্শলিপির ওষ্ঠে অনল! ব্রততী, হাতটা শক্ত করে ধরে রাখো কিচ্ছু করতে পারবে না কেউ...

হরিণের রক্তমাংস

বিশ্বজিৎ মন্ডল অবাধ্য শিকারির শীতঘুম বলে কিছু নেই ক্লেভিয়াস জোনে দাঁড়িয়ে আজও খোঁজে সেমিকোলনের পরের লাইন সারবেঁধে অরণ্যের অলিন্দে...

প্রজ্ঞা ও পাথর

সুমন সাজ্জাদ সুজাতা-সুন্দর ওই প্রজ্ঞার পাথর স্তব্ধতায় শুয়ে আছে চুপ। উপত্যকার খাদে জেগেছে কম্পমান দলছুট দুঃখের দেশ। কথা নাই।...

কবিতাগুচ্ছ

শুভাশিস সিনহা চারুগমন একটু ভেতরে যদি যাই পুষ্পের কুঁড়ির, গন্ধের রঙের, একটু অশান্ত চোখে আকাশে বিদ্যুতে, খানিক অধর্মে… যা...

তুমি আসবেই

মাহমুদ টোকন সকালে তোমাকে ডাকি; সন্ধ্যায় – তুমি ঠিক চাঁদ। মধ্যদুপুরে রোদ তোমাকেই ডাকছি অকস্মাৎ। ডাকছি তোমাকে, ডাকি শেষরাতে...

মধ্যরাতের অশ্বারোহী

জাফরুল আহসান কথার কথা নয়তো সবি ভালোবাসায় জড়িয়ে আছি রাতদুপুরে ঘুমের ঘোরে খেলছি দেখো কানামাছি আমার পথে তোমার চলা...

ভালোবাসা আমার দশটি তারা কুসুম কুসুম

রবীন্দ্রনাথ অধিকারী গানের ভেতর দিয়ে বুকের ভেতর দিয়ে তোমাকেই দেখি সাবলীল যেন মায়াবী ময়ূর, তুমি নাচো, নেচে ওঠে ধরিত্রী...

নির্মাণ

শারদুল সজল আমার বুকের হাড় দিয়ে পৃথিবী গড়েছে সভ্যতার প্রথম হাতিয়ার বিস্ফোরিত সূর্যের অতল গহবরে – রোদরঙের পরস্পর হাওয়ায়…...