চিত্রকলা

  • নিসর্গে অন্তর্হিত হৃদয় ও আনুষঙ্গিক

    এস এম সাইফুল ইসলাম গভীর বিষাদে আচ্ছন্ন আজ মানুষের মন। নগর, সভ্যতা ও যান্ত্রিক কোলাহল আমাদের সহজাত বোধ ও সূক্ষ্ম অনুভূতি ক্রমশ ধ্বংস করে চলেছে। প্রকৃতির সঙ্গে বাড়ছে মানুষের দূরত্ব। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মানুষের কল্যাণে অনেক কিছুই করেছে সত্যি, কিন্তু একই সঙ্গে প্রকৃতি ও মানুষের মাঝে গড়ে দিয়েছে অগুনতি দূরত্বের দেয়াল। ইট-পাথরের দেয়ালঘেরা শহর মানুষকে…

  • রঙের রেখায় স্বদেশের আচড়

    ইব্রাহিম ফাত্তাহ যমুনা নদীর শাখা এক নদী সিরাজগঞ্জের হুরাসাগর। এই নদীতীরে জন্ম যাঁর, তাঁর সৃষ্টিতে চরাঞ্চলের চেহারা ফুটে ওঠাই তো স্বাভাবিক। ভেজাবালুর ওপর মুখ গুঁজে থাকা শামুক, বালুর বুকে কাঁকড়ার চলাচলের রেখা এমন অনেক কিছুর দেখা যেন আমরা পেয়ে যাই রেজাউল করিমের চিত্রকলায়। চিত্রপটে তিনি তুলে আনেন নদী ও বৃষ্টিধারার আবেশ, বাংলা নিসর্গের নানা ঋতুরূপ…

  • উদার মানবিকতার চিত্রশিল্প

    রবিউল হুসাইন ‘বন্ধনহীন হৃদয়নদীর গান’ শিরোনামে চিত্রকলার শিক্ষক, বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ডিন শিল্পী মতলুব আলীর সম্মিলিত প্রয়াসের এ-যাবৎ কৃত নানা ধরনের, বিষয়ের ও বৈচিত্র্যের বহুবিধ চিত্রকর্ম নিয়ে একটি একক চিত্রপ্রদর্শনী শিল্পকলা একাডেমীর সৌজন্যে গত মার্চ মাসে হয়ে গেল। প্রদর্শনীতে শিল্পীর ষাটের দশকে ছাত্রজীবনের অনুশীলন থেকে শিল্পীজীবনের সৃজনশীল নিরীক্ষাপ্রবণ অনেক ছবি স্থান পেয়েছে। বিভিন্ন…

  • শান্তির অন্বেষায় শিল্পী

    মাহমুদ আল জামান চিত্রকর মোহাম্মদ ইকবাল তাঁর উদ্ভাবনী কৌশল, নিত্য-নিরীক্ষা ও বিষয়ের গুণে বাংলাদেশের চিত্রকলার ভুবনে এক সম্ভাবনাময় চিত্রকর হিসেবে আবির্ভূত হয়েছিলেন। গত শতাব্দীর অন্তিম দশকে তাঁর একটি প্রদর্শনী দর্শকদের নজর কেড়েছিল। তাঁর সৃজনভূমিতে এক অনুভূতিময় ও সংবেদনশীল জগৎ সৃষ্টি হয়েছিল। আমরা লক্ষ করছিলাম তাঁর মানসভুবনে বুদ্ধির দীপ্তির ছাপ। তিনি তখন ক্রমে নিজেকে উত্তরণের জন্য…

  • সমকালীন শিল্প ও শিল্পী

    এস এম সাইফুল ইসলাম মানুষ প্রকৃতিগতভাবে সৃজনশীল। প্রত্নতত্ত্ববিদগণের আবিষ্কারে প্রাচীন যুগের মানুষের অঙ্কিত গুহাচিত্র এবং পশুর হাড় ও শিং থেকে নির্মিত মানুষ ও জীবজন্তুর মূর্তিসহ বিবিধ শিল্পনিদর্শনের দেখা মেলে। ধারণা করা হয়, শিল্পকলার উদ্ভব হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার বছর আগে। ‘হোমো স্যাপিয়েন্স’ মানুষ তার চারপাশে যা দেখেছে তা-ই তার শিল্পমাধ্যমে ধরে রাখার চেষ্টা করে গেছে।…

  • সকল রসের ধারা

    দেবব্রত চক্রবর্তী প্যারিসের গ্যালারি পিগালে রবীন্দ্রনাথের ছবির প্রদর্শনী হলো ১৯৩০ সালে। বিদেশে এই তাঁর প্রথম প্রদর্শনী। প্রদর্শনীর সাফল্যে অভিভূত হয়ে রবীন্দ্রনাথ ইংল্যান্ড থেকে ওই বছরের ২৯ জুন নন্দলাল বসুকে এক চিঠিতে লিখেছেন – ‘আমার ছবিগুলি শান্তিনিকেতন চিত্রকলার আদর্শকে বিশ্বের কাছে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছে। এই খ্যাতির অংশ তোমাদের প্রাপ্য। কেননা তোমরা নানা দিক থেকে তোমাদের আলেখ্য…

  • নিসর্গের ভেতর বাড়িতে

    জাহিদ মুস্তাফা ছবি আকায় নিসর্গ সবচেয়ে বহুল ব্যবহৃত বিষয়। শিল্পীরাই পছন্দ করেন নিসর্গ নিয়ে আকতে। উদার প্রকৃতির বিস্তৃত ভুবন, সৌন্দর্যের সহস্র পর্দার রহস্যময়তা সৃজনে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন প্রায় সব চিত্রকর। সুদূর কানাডায় বসবাসকারী শিল্পী আলমগীর হক প্রকৃতি নিয়ে প্রকৃতিকে অনুভব করে নিজের চিত্রপট সাজিয়েছেন। ‘অনুভবে নিসর্গ’ শীর্ষক একক ছাপচিত্রের এ-প্রদর্শনী হয়ে গেল ঢাকার ধানমন্ডিতে বেঙ্গল শিল্পালয়ে।…

  • কাইয়ুম চৌধুরী : জীবনের অন্যতম বন্দনা

    মফিদুল হক বাংলাদেশের প্রবীণ শিল্পী এবং শিল্পসম্ভারে জনচিত্ত, আলোড়িত ও সমৃদ্ধ করে চলা সৃজনমুখর চিত্রকর কাইয়ুম চৌধুরীর অশীতিতম জন্মদিন উপলক্ষে সাম্প্রতিককালে অঙ্কিত তাঁর আশিটি ছবি নিয়ে যে বিশাল প্রদর্শনীর আয়োজন করেছিল বেঙ্গল গ্যালারি অব ফাইন আর্টস এর নাম দেওয়া হয়েছিল ‘আত্মানুসন্ধান’। প্রবীণ কোনো শিল্পীর এতো কাজ একসঙ্গে দেখতে পাওয়া সৌভাগ্যের বিষয়, শিল্পীর কাজের গভীরতা ও…

  • আবেগ ও সংবেদনার অনুরণন

    এস এম সাইফুল ইসলাম মহান রুশশিল্পী ভাসিলি কান্দিনিস্কি একবার লিখেছেন – একটি বিন্দু থেকেই সবকিছুর সূত্রপাত। জীবন ও শিল্প প্রসঙ্গে এর চেয়ে সহজ ও সুন্দর দর্শন আর হয় না। বিন্দু থেকে সিন্ধু যেমন বিবেচ্য, একই সঙ্গে বিন্দুতেই সবকিছুর প্রত্যাবর্তন অনিবার্য। মহাশূন্যে বিলীন হওয়ার মধ্য দিয়েই সবকিছুর সমাপ্তি। জীবনের স্বরূপ, গভীর উপলব্ধি, সময় ও বোধের প্রতিফলনেই…

  • বিষয় বর্ণের বিভূতি

    মইনুদ্দীন খালেদ প্রুশিয়া। এই নামে একটি দেশ ছিল। দেশটি নেই এখন। কিন্তু দেশের নামে একটি রং রয়ে গেছে। রংটির নাম প্রুশিয়ান ব্লু। রং যখন স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব পেল, তখন নীলই স্বরাট হলো ব্লু রাইডার শিল্প-আন্দোলনে। তবে নীল ঠিকানাবিহীন। তাকে সীমায়িত করা যায় না। আকাশের কাছে – সমুদ্রের  কাছে দুচোখ এ বোধ অর্জন করেছে। এ-কথা বলেছিলেন…

  • রঙের প্রপাত

    মুনতাসীর মামুন মারুফ আমার যৌবনের বন্ধু। আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, মারুফ চারুকলার। আমরা যাঁরা লেখালেখি করতাম, যারা ছবি অাঁকত, যাঁরা অভিনয় করত, তাঁদের পরস্পরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল। প্রবাসী পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে দেখা হলে, চোখের সামনে ভেসে ওঠে ১৯৬৯, ১৯৭১, ১৯৭৫। আমরা একসঙ্গে কাটিয়েছি। একসঙ্গে একটি রাষ্ট্রের জন্য সংগ্রাম করেছি, একটি রাষ্ট্রের জন্ম দেখেছি, রাষ্ট্রটি বিকশিত…

  • নাগরিক শিল্পীর পতঙ্গ চোখে

    জাহিদ মুস্তাফা   চেনা জগতের মাঝেই যেন অচেনা এক জগৎ খুঁজে বেড়ায় পতঙ্গ। নগরবাসীর নানা ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া, দুঃখ-দারিদ্র্য, আচার-অনাচার, আনন্দ-বেদনা অবলোকন করে তারা। পতঙ্গের চোখ দিয়ে দেখা এসব ঘটনা সমতলে সাজিয়ে তোলেন শিল্পী তাঁর কাগজে-ক্যানভাসে। তিনি সঞ্জীব দত্ত। চট্টগ্রামে জন্ম, শিক্ষাও ওখানে। ১৯৯০ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা অনুষদ থেকে স্নাতকোত্তর করেছেন। আশি থেকে নববই। গত শতকের উত্তাল…