আমলকী

তুষার কবির

 

বৃষ্টির দোতারা বাজে – জলে ভেজা কিশোরী কদম ফুটে ওঠে মুগ্ধ

দ্যোতনায়! রক্তহিজলের ঝাঁকে সুরের সরোদ বাজে – দুই পায়ে

হেঁটে যায় অলীক ডাকপিয়ন – উড়ে যায় জমা চিঠি দূরের এক

আমলকীবনে!

 

প্রেমের ক্বাসিদা বাজে ভুলে থাকা সান্ধ্যগানে – অশ্রম্ননদীর

কিনারে – সেই সুরে ঘোরে এক কুমারী রাধিকা!

 

এসো, হারিয়ে যাই এই সুরের অপেরায় – নর্তকের ঘুমের

ঘুঙুরে – হারিয়ে যাই এই গানের গহনে – দূরে ফেলে আসা

আমলকীবনে!

Leave a Reply

%d bloggers like this: