দুঁহু

শুভাশিস সিনহা

একদা দুজনে মনে আছে শৈলবালা, হিমনগরীর পথে

কেবল চক্ষক্ষর দীপ জ্বেলে ঘুরেছি, নিরন্ন প্রেমতরাসের গান

কণ্ঠে নিয়ে জলসায় মজেছে চৌধারে, অভিসারিকারা, কেন

চন্দ্রমা গলেছে দুধে, কেন জোনাকি পাহারা দিয়ে অগ্নিফুলে

সাজালো বিরহশয্যা, পথান্তর-সংলগ্ন যুগল দেহাতি

হারানো মন্দির, প্রত্নবেদনার হৃৎদুর্গ, ভাঙনপ্রস্তর

দেখিনি দেখেও তবু, একদা শৈলের ভাবে, হিমনির্ঝরিণী

আঙুলে আঙুলে জড়ানো প্রণয়-পত্রাবলি, ভাসে, ওড়ে, ঘোরে

 

একদা দুজনে, মনে আছে, মনে নাই, শিলার বক্ষক্ষর থেকে

বিস্ফোরিত অমিয় গরলে ডুবে গিয়ে ভেসে ওঠে, অহিংসার

মৌনদেশ, সীমান্তসিঁদুর পরে ফেলে রূপভূগোলের খাদ

গিরি-চূড়া ভেঙে ভেঙে হে অনন্যা ছুটেছিলে হাওয়ার মঞ্জিরে

দুইজনে, কোনোদিন, পৃথিবী যখন ঠিক গলে যাবে, তাপে

তারও এক-দুই মুহূর্তের আগে, জেগে মাত্র উঠেছি সহসা।

Leave a Reply

%d bloggers like this: