তৃষ্ণার্ত চাতক

পথে নেমেই খুঁজে নিতে হয় পথ

প্রত্যাশিত পথ অচেনাই রয়ে যায়

তবু বিরামহীন চলায় পৌঁছে যাই

ভুলভাল ঠিকানায়

চোখের সামনে অবারিত প্রান্তর

মিশে থাকে দিগন্তে

দিগন্ত কি সীমারেখায় আঁকা

যার দাগ বুকের গভীরে

যা কিছু আড়াল তা গোপন থাকুক

বাইরে তা বড় বেশি বেমানান

সবটুকু শূন্যতা মেনে

হাত রাখি বিষের পেয়ালায়

অভিশাপ ও আশীর্বাদের মাঝখানে

কেঁপে ওঠে প্রাণ

কারো নিবিড় টানের অপেক্ষায়

অযাচিত প্রার্থনায় উপুড় করি মুখ

এক ফোঁটা বৃষ্টি পেতে

ঊষর মরু বুক তৃষ্ণার্ত চাতক।