ইতি শতবর্ষী সুভাষ

পিয়াস মজিদ আগুন অধ্যুষিত এই কালমালঞ্চে নির্বাসন আমার। পুষ্পের পরশমণি জাগায় না বরং পাড়ায় ঘুম। ফুলের হর্ম্য আছে, প্রেমডাকাত...

বর্ষার কড়ি

সঞ্জয় আচার্য যাও মেঘ দূরে … আমার ঘরে রৌদ্রের দেখা নেই রৌদ্রবিহীন সঙ্গীবিহীন গ্রামপথ আজ ফাঁকা যখন থাকি একা...

ফণীজ্বর

সাবেরা তাবাসসুম রাত দুর্মর ফণী আছড়ে পড়ে উপকূলে হিহি ঠান্ডা লতা-পাতা কাঁথা কুঁকড়ে আছে সমূহ তস্কর শীতল সেখানে অন্ধকার...

লালনের খাঁচা

প্রণবকুমার মুখোপাধ্যায় মনের মধ্যে সহস্র মন তার একটাতে কখন লালন বসিয়ে গেছে আজব কী এক খাঁচা – টের পাইনি...

অমিয় বৃক্ষ অধরাই থেকে গেল

মাহমুদ কামাল হেঁটে যেতে যেতে যতটা পেয়েছি, আলো অন্ধকারেই চাদরের মধুরিমা যেটুকু সকাল সজীবতা এনে দিতো সেটুকুই ছিল প্রাপ্তির...

যখন তাদের প্রিজনভ্যানে তোলা হচ্ছিল

মিনার মনসুর দিয়াবাড়ির কাশবন ঝলসে দিয়ে ওরা বেরিয়ে এসেছিল। ভোরের বিনম্র আলোর মিছিল। তাদের অনিন্দ্যসুন্দর অবয়ব থেকে বকুল শিউলি...

কাদামাটির বই

শ্যামলকান্তি দাশ আমাকে দাও একটি-দুটি সুর ভাঙা ঘাটের পুরনো সেই গান শরৎকালের রৌদ্রছায়াগুলি একলা বাড়ির ঈষৎ অভিমান। আমাকে দাও...

বসন্তপ্রণয়

কামাল চৌধুরী আমার খামারে আদি উৎসব চাষবাস আমি জানি বসন্তে তোর গায়ে পড়া ভাব বাতাসের কানাকানি। হারানো প্রাচীন গাঁয়ের...

বিচ্ছেদ

কামাল চৌধুরী উপসংহারের আগে বিচ্ছেদের পত্রে লেখা ধুলোবালি কাদার অক্ষর সেখানেই বেইলি ব্রিজ উড়িয়ে দিয়েছে অলিখিত যুদ্ধবিমান বিজয়ের জন্য...

দর্শক

কামাল চৌধুরী দরজার দিকে যেতে যেতে হাতে উঠে আসছে খোলা বারান্দা শূন্যতা পেরোতে গিয়ে উঠোন ঢুকে পড়েছে ঘরে তুমি...